Alapon

দুর্নীতি যখন জাতির রাহাবার

দুর্নীতি নামক হীন এ শব্দটির সঙ্গে ছোটো-বড়ো সকলেই কমবেশি পরিচিত । সকলেই জানি, দুর্নীতি একটি অভিশপ্ত ব্যাধি । যে ব্যাধি থেকে উত্তরণের বিকল্প কোনো পথ নেই । অথচ পুরো পৃথিবীতেই আজ দুর্নীতির রমরমা অবস্থা চলছে । রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ ব্যক্তি থেকে শুরু করে সমাজের সর্বনিম্ন ব্যক্তি পর্যন্ত কেউই এর বাহিরে নেই ।  আর এই অবস্থা শুধু অমুসলিম দেশগুলোতে নয়; মুসলিম দেশগুলোতেও অহরহ ।

তবে দুর্নীতির ব্যাপারে সবচেয়ে দুঃখজনক মজার কথা হচ্ছে, যে শিক্ষা পেয়ে জাতির ভবিষ্যৎ প্রজন্ম দেশ এবং জাতিকে নেতৃত্ব দিবে, সেই শিক্ষাখাতেই সবচেয়ে বেশি দুর্নীতি হচ্ছে । আহা দুর্নীতি, ওহো দুর্নীতি তোমার কী পাওয়ার, ন্যায়কে পরাভূত করে তুমিই হয়েছো আজ জাতির রাহাবার । সত্যিই এই দুঃখ নেই কোথাও লুকাবার ।

অথচ দুর্নীতি এমন একটি সামাজিক অভিশাপ। কোনো জাতির ধ্বংসের পূর্বে তাদের মধ্যে দুর্নীতি মহামারীর মতো বিস্তার লাভ করে থাকে। আল্লাহ তা‘আলা বিভিন্ন যুগে পৃথিবীর বিভিন্ন জাতিকে শাস্তি দেওয়ার প্রেক্ষাপট বর্ণনা করে আল-কুরআনে বলেন:

‘যারা দেশে সীমালঙ্ঘন করেছে এবং তাতে বড় বেশি দুর্নীতি করেছে, তখন তাদের ওপর তোমার প্রভু শাস্তির কশাঘাত হানলেন। নিশ্চয়ই তোমার প্রতিপালক গভীরভাবে পর্যবেক্ষণে রেখেছেন।’ ( ৮৯: ১১-১৪)

উল্লিখিত আয়াতে বলা হচ্ছে যে, যখন দেশে দেশে আইন ও অধিকারের সীমালঙ্ঘন করা হয়; মহান আল্লাহর বিধানের বিরুদ্ধাচরণ করা হয় এবং এই দুর্নীতি বিস্তারের ক্ষেত্র সম্প্রসারিত হয় অর্থাৎ দুর্নীতি সমাজের রন্ধ্রে রন্ধ্রে ঢুকে পড়ে, তখন আল্লাহ তা‘আলা ওই দেশ ও জাতির ওপর নারাজ হন এবং তাদেরকে নানাভাবে শাস্তি দেন। এই শাস্তি হতে পারে বন্যা দিয়ে ফসলের ক্ষয়ক্ষতির মাধ্যমে, অনাবৃষ্টির মাধ্যমে কিংবা শিলাবৃষ্টির মাধ্যমে ।  আল্লাহ আমাদের এইসব শাস্তি থেকে হেফাজত করুন । 

সর্বশেষ একটি কথা বলেই শেষ করবো,

অন্যান্য ধর্মরা তাদের অনুসারীদের শিখায়, ‘পৃথিবীটা দুর্নীতিতে ভরা, কিন্ত তুমি এর রক্ষা করেও বাঁচতে পারো । অপরদিকে ইসলাম তার অনুসারীদের শিখায়, পৃথিবীটা দুর্নীতিতে ভরা, কিন্তু তুমিই একে পাল্টাতে  পারো ।’ 

তাই আসুন, অন্য কে কী করছে বা কে কী করবে আমরা সে দিকে না তাকিয়ে, নিজেই সমাজ তথা দেশ থেকে  দুর্নীতি নামক রাষ্ট্রবিধ্বংসী এই ব্যাধি মূলোৎপাটন করার চেষ্টা করি । 

পঠিত : ১০২৩ বার

মন্তব্য: ০