Alapon

প্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশ

লাখো শহীদের রক্তস্নাত প্রাণপ্রিয় মাতৃভূমি বাংলাদেশ
আমি জানি তুমি ভারাক্রান্ত আর ভালো নেই,
তোমার পতাকা খাবলে ধরেছে যত ষড়যন্ত্রকারী হায়েনা
ভেবে হৃদয়ে রক্তক্ষরণ আর হারিয়ে ফেলি খেই।


এইতো হাটি হাটি পা পা করে পার করলে ৪৫ টি বছর
বড্ডো ভয় হতো তোমার অগ্রযাত্রা দেখে পরবে শয়তানের আসর,
শকুনের চাওয়া যেমন মরে যাক দুগ্ধবতী গরু
জানোয়ারদের লক্ষ্য তোমায় করবেই মরু।


হাজার বছরের গৌরবময় ইতিহাস তোমার
গর্বে বুক ফুলিয়ে হাঁটে সন্তান দেশমাতৃকার,
উত্তর গোলার্ধ থেকে দক্ষিণ গোলার্ধ সর্বাগ্রে
মাগো তোমার সন্তান আছে সর্বদাই অগ্রে।


কিন্তু একি অবস্থা এখন!
মরছে মানুষ পাখির মতো যখন তখন
বাতাস দূষিত হায়েনার অট্টহাসিতে
মানবতা আর বিবেকবোধ ঝুলছে ফাঁসিতে।


চারিদিকে চাঁপা ক্ষোভ আর সুনসান নীরবতা
এতো অন্যায় আর সন্ত্রাস দেখেও কাটছে না মোদের সরলতা
সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদ দিচ্ছে না চিরতরে রুখে
কারণ একটাই স্বদিচ্ছা আর সাহস নেই বুকে।


ইস্যুর পর ইস্যু পরে যাচ্ছে চাঁপা
ধ্বংসযজ্ঞ চালিয়েই যাচ্ছে পাগলা কুত্তা ক্ষেপা
তোমার কোমল জমিন ভেসে যাচ্ছে রক্তের বন্যায়
স্বাধীনতার চেতনাকে ভুলুন্ঠিত করে চলছেই অন্যায়।


সৌহার্দ,ত্যাগ আর সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি
জানি মাগো এ তোমার চিরকালের প্রীতি
উস্কানি আর সহিংসতার আগুনে তা পুড়ে হলো ছাই
খুঁজে-ফিরে হয়রান পুনরুদ্ধার করবো তাই।


বাণিজ্য গেল, শিক্ষাব্যবস্থা গেল, গেল নদীর জল
রক্ত নিলি, সম্পদ নিলি, হারামজাদা আর কি চাস বল?
সম্ভ্রম হারালো নারী আর সাঁওতাল হারালো বাড়ি
ভাবতে পারো মা তোমার সন্তানেরাই কলকাঠি দিচ্ছে নাড়ি?


জানি মাগো তুমি আজ বড়োই চিন্তিত
আশায় আছো আসবে নাবিক করবে নিশ্চিন্ত
শক্ত করে ধরবে হাল, আত্মবিস্বাসে উড়াবে পাল
চাবুকে পিটিয়ে উঠাবে যতো অমানুষের ছাল।


ধৈর্য্য ধরো, আশায় বাধো মাগো তোমার বুক
শত দিকে শত দুঃখ আসুক আসুক
আমরা আছি মা সাথে তোমার উচ্চকিত পতাকা
প্রাণ যাক তবু বাঁচাবো এ আমার দেশমাতৃকা।

পঠিত : ৫৪২ বার

ads

মন্তব্য: ০