Alapon

উকাজের মেলা!

উকাজের মেলায় রাসুল (সাঃ) গিয়েছেন সুতরাং শুভেচ্ছার সাথে পূজা মণ্ডপে যাওয়া দোষের নয়!!


আরবের উকাজের মেলায় পূজা বসতো, সেই শিরকী উকাজের মেলায় রাসুল (সা.) যেতেন। উদ্দেশ্য দাওয়াতি কাজের জন্য সুতরাং এখন যদি ভাল উদ্দেশ্যে, সম্পর্ক বৃদ্ধিতে হিন্দুদের শুভেচ্ছা জানাতে মন্দিরে পুজার সময় যাওয়া হয় এতে কোন দোষ নেই।


দুঃখিত জনাব, আমি আপনার এই মতের একজন ঘোরতর বিরুধী। আপনার উকাজের মেলা সম্পর্কে কোন ধারনা নেই অথবা এড়িয়ে গিয়ে নিজের মত করে প্রচার করতে চাচ্ছেন।



আসুন জানি উকাজের মেলা আসলে কিঃ আমরা জানি মোহাম্মদ(সাঃ) যে যুগে এবং যে স্থানে জন্ম গ্রহণ করেছেন, সেখানে সর্বত্র চলত কবিতার ছড়াছড়ি। তারা তাদের সাধারণ কথা বার্তাগুলো পর্যন্ত কবিতার মত বলার চেষ্টা করতো। আরবের প্রতি বছর উকাজের মেলা বসত সেখানে বিভিন্ন কবির আগমন ঘটত। তারা কবিতা নিয়ে পরস্পর কাব্য প্রতিযোগিতায় লিপ্ত থাকতো। এই কবিতা গুলোতে থাকতো অশ্লীলতা ও শিরকে পরিপূর্ণ। এই কারণে সে যুগে কুরআনকে আল্লাহর কালাম প্রমাণ করবার জন্য আল্লাহ তায়ালা মু’জিযাহ হিসাবে গোটা কুরআনকে কাব্যিক আকারে পেশ করেছেন।এবং সে কবিতার মান এতই উচ্চ পর্যায়ের ছিল যে সে যুগের বিখ্যাত কবি ইমরুল কায়েস কবিতা লেখা বন্ধ করে দেন এবং তিনি বলতেন যে, কুরআনের সামনে আমার এসব কবিতা চলবেনা। মুল কথা হলো উকাজের মেলাটা ছিল গানবাজনা, কবিতা, মদ জুয়ার আড্ডা খানা। তখনকার একটি পরিপূর্ণ সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার মেলা। এর সাথে কোন পুজার সম্পর্ক ছিলনা। এক কথায় ধারনা নিতে চাইলে এখানে যেতে পারেন। http://global.britannica.com/place/Ukaz


এবার বলুন হিন্দুদের মন্দিরে যাওয়ার সাথে যারা উকাজের উদাহরণ টেনেছেন সেটা ঠিক হয়েছে কিনা। রাসুল সা. এর জন্য উকাজের মেলা ছিল একটি আশীর্বাদ। তিনি এই মেলার সুযোগ নিয়ে কোরআন প্রচারে যেতে পেরেছিলেন। রাসুল (সা) নিশ্চয় সেখানে যেয়ে শিরক পূর্ণ কবিতাকে বাহ বাহ জানাতেন না। তিনি সেই সব খারাপ কবিতাকে চ্যালেঞ্জ দিয়ে কোরআনের বানী প্রচারে সেখানে যেতেন। এখন শুভেচ্ছা জানিয়ে মন্দিরে গিয়ে আমি কি কোরআন প্রচার করতে পারছেন?


হিন্দুদের মাঝে দাওয়াতী কাজের কথা চিন্তা করলে সারা বছর বাদ রেখে শুধু পূজার সময় কেন মনে পড়বে? জনপ্রতিনিধী হওয়ায়, মন্ডপে যেয়ে দুগ্যার সাথে সেলফি তুলে ফেবুতে প্রচার করে দুর্গার প্রচার করলাম নাকি ইসলামের প্রচারনা করলাম?? আমি একটি হাদিস দিয়ে শেষ করতে চাই-


"তোমরা মুশরিকদের উপাসনালয়ে তাদের উৎসবের দিনগুলোতে প্রবেশ করো না। কারণ সেই সময় তাদের উপর আল্লাহর গযব নাযিল হতে থাকে।" ' - 'উমার ফারুক (রা) (তথ্যসূত্রঃ ইবনুল ক্বাইয়্যিম(রাহিঃ), আহকামুল জিম্মাহ ১/৭২৩-


পঠিত : ১০৩৬০ বার

মন্তব্য: ০