Alapon

একটি অধঃপতনের গল্প!



নিয়মিত পাঁচ ওয়াক্ত নামাজ পড়ত রিমি। সে জানত বিয়ের আগে প্রেম করা হারাম তাই প্রেম করার কোনো ইচ্ছেই তার ছিল না কোনোদিন। অনার্সে ভর্তি হওয়ার পর রিমির বাবা রিমিকে একটা মোবাইল দেয়, জীবনে প্রথম ব্যক্তিগত মোবাইল হাতে পাওয়া! রিমির খুব ঘনিষ্ঠ বান্ধবী আঁখি! খুব ভাল মেয়েটা, পরিপূর্ণভাবে ইসলাম মেনে চলার চেষ্টা করে। রিমিকে সে একটা ফেসবুক আইডি খুলে দেয় যাতে দ্বীনী ভাই-বোনদের ইসলামি পোষ্টগুলো পড়ে উপকৃত হতে পারে। বিভিন্ন বিষয়ের উপর ইসলামি পোষ্ট পড়ে দ্বীনী জ্ঞান অর্জনের আগ্রহ বেড়ে যায় রিমির। একদিন এক ভাইয়ের পর্দা সম্পর্কিত একটা পোষ্ট পড়ে সে এতটাই মুগ্ধ হয়েছিল যে ওইদিন থেকেই সে পরিপূর্ণ পর্দা করা শুরু করে দেয়। রিমি সাহস করে একদিন ওই ভাইকে ইনবক্সে কৃতজ্ঞতা জানায়, ইসলামের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে লেখার জন্য উৎসাহ দেয়। এরপর থেকে মাঝে মাঝেই রিমির চ্যাটিং হয় ওই ভাইয়ের সাথে। কথা চলতে থাকে বিভিন্ন মাসলা মাসায়েল নিয়ে। কথা চলে ব্যক্তিগত, পারিবারিক বিভিন্ন বিষয় নিয়ে। এভাবে কথা বলতে বলতে কখন যে দু'জনের মধ্যে মন দেয়া নেয়া শুরু হয়েছে দু'জনের কেউই বুঝে উঠতে পারেনি। কয়েকমাস চলতে থাকে এভাবে। বন্ধ হয়ে যায় ছেলেটার লেখালেখি! কিছু লিখতে গেলেই হাতটা শক্ত হয়ে যায়, মনের মধ্যে তুফান শুরু হয়, হায় আমি যে হারামে লিপ্ত!!! না না,এভাবে হিদায়াতের স্বাদ থেকে আমি বঞ্চিত হতে চাই না- আজই রিমির সাথে সব যোগাযোগ বন্ধ করে দেব! কিন্ত তা আর সম্ভব হয়ে ওঠেনা! রিমির মায়াভরা চেহারাটা মনে পড়তেই কলিজায় টান পড়ে, এমন সহজ সরল একটা মেয়েকে কি স্মৃতি থেকে চাইলেই মুছে ফেলা যায়!? তাছাড়া ও তো খুব ভাল মেয়ে-নামাজ পড়ে, পর্দা করে!একটা জব হয়ে গেলেই তো আমি ওকে বিয়ে করব। এভাবে নিজেকে দিনের পর দিন সান্ত্বনা দিতে থাকে ছেলেটা।দিন যত যায় ক্রমশ দুর্বল হতে থাকে দু'জনের ঈমান, সলাতে আর আগের মত মজা পাওয়া যায় না, কুর-আন ও পড়া হয় না নিয়মিত, জ্ঞানের অনেক কিছুই স্মৃতির পাতায় ঝাপসা হয়ে গেছে, এখন গান শুনতেও তেমন খারাপ লাগে না.......! এভাবেই চলতে থাকে মাসের পর মাস!
:
:
শেষ পরিণতিতে ইবলিস ভীষণ খুশি। তাকে আর দোষ দিয়ে কি লাভ! সে তো খারাপ কিছুর প্রলোভন দেখায়নি। ধন্যবাদ জানিয়ে কৃতজ্ঞ হতে বলেছিল শুধু.......!
!
কিন্ত শয়তানের পদাংক অনুসরণ করলে যে এমনই হয়, তা আমরা কেউ বুঝতে চাই না!

আসলে ইসলামি প্রেম বলে কিছু নেই,এটা শয়তানের ধোঁকা।
প্রেম বিয়ের আগে নাজায়েজ।

সংগৃহীত

পঠিত : ১২৫৭ বার

মন্তব্য: ০