Alapon

রোজিনা না শাহিদা? কে বড় এজেন্ট?



ভারত ব্যর্থ হয়েছে আমাদেরকে টিকা দিতে। এই টিকা নিয়ে বাংলাদেশে দুর্নীতি হয়েছে, আর কাজটা করছে দরবেশ আর হাসিনা। হাসিনা আমার আপনার টাকা দিয়ে ভারত থেকে উচ্চদামে ভ্যাক্সিন কিনেছে। এর মাধ্যমে ভারত খুশি। আবার এই প্রক্রিয়া সম্পাদনের জন্য থার্ড পার্টি হিসেবে যুক্ত করেছে দরবেশ বাবা সালমানের বেক্সিমকো ফার্মা। তারা লোকাল ভেন্ডর হিসেবে প্রতি ডোজে নেট ইনকাম করছিল ৭৭ টাকা।

কিন্তু বিধি বাম। ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট পর্যাপ্ত টিকা উৎপাদনে ব্যর্থ। তারা আমাদের জানিয়ে দিয়েছে টিকা দিবে না। অথচ হাসিনা আর সালমান টিকা পাওয়ার আগেই দেশের টাকা ভারতের ফান্ডে অগ্রিম জমা দিয়েছে। এই অগ্রিম টাকা জমা দেওয়ার জন্য কোনো ছাড় বা সুবিধা দেয়নি ভারত, উল্টো বেশি দাম নিয়েছে। কিন্তু মুশরিকদের দাস হাসিনার কিছু বলার সক্ষমতা ছিল না ভারতের বিরুদ্ধে।

টিকা না পেয়ে হাসিনা সরকারের কুত্তাপাগল অবস্থা। এমন পরিস্থিতিতে এগিয়ে আসে চীন। তারা বাংলাদেশকে টিকা দিতে চায়। বিনিময়ে কিছু শর্ত জুড়ে দেয়। আর এই শর্তগুলো ছিল গোপন। এদিকে ভারত মরিয়া ছিল জানার জন্য চীন কী শর্তের বিনিময়ে বাংলাদেশকে টিকা দিতে চায়।

অনেক শর্তের মধ্যে একটি শর্ত ছিল চীনের টিকার দাম না জানানো। চীন বাংলাদেশের হাসিনাকে কাছে টানতে কম দামে টিকা দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয়। প্রতি ডোজ ১০ ডলার করে। অথচ চীন এটি শ্রীলঙ্কায় ১৫ ডলারে সেল করেছে। আরবে ২০ ডলার ও তার চেয়েও বেশি দামে সেল করেছে।

ভারতের এজেন্ট প্রথম আলোর রোজিনা চীনের সাথে এই চুক্তি বিষয়ক তথ্য চুরি করে ধরা পড়েছিল। সেই নিয়ে ম্যালা কাণ্ড হলো। রোজিনাকে ছেড়ে দিতে বাধ্য হলো হাসিনা।

এখানে ভারতের এজেন্ডা হলো চীন-বাংলাদেশ সম্পর্ক যাতে তৈরি না হয়। আর এজন্যই তারা রোজিনাকে দিয়ে চুক্তির তথ্য ফাঁস করাতে চেয়েছিল। যে তথ্যে ফাঁস করে চীন ও বাংলাদেশের সম্পর্ক নষ্ট করা যাবে তা রোজিনা দিয়ে ফাঁস করাতে না পারলেও মন্ত্রী পরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব ড. শাহিদা আক্তার (যার ছবি দেওয়া হলো) সে ফাঁস করে দিয়েছে।

সে শুধু এই তথ্যই ফাঁস করেছে যে, বাংলাদেশ চীন থেকে আনা টিকার জন্য ডোজ প্রতি ১০ ডলার করে দিচ্ছে। আর এতেই চীনের ব্যবসা হুমকির মুখে পড়েছে। শ্রীলঙ্কা প্রথমে আপত্তি জানিয়েছে। এরপর আরো অনেক রাষ্ট্র আপত্তি জানিয়েছে। বাংলাদেশ যদি ১০ ডলারে পায় তবে তারা কেন পাবে না?

এখন চীন ব্যবসা রক্ষার্থে পল্টি নিয়েছে। তারা আমাদের টিকা দিবে না জানিয়েছে। আর যদি দেয়ও সম্ভবত ২০ ডলারে অর্থাৎ দ্বিগুণ দাম দিয়ে নিতে হবে। মুশরিকদের কাছে হাসিনা নিজেকে ও আমাদের সবাইকে জিম্মি করে রেখেছে। আর সে সুযোগে ভারত প্রচুর এজেন্ট নিয়োগ করেছে সব পেশা ও গোষ্ঠীর মধ্যে। রোজিনাকে দিয়ে ব্যর্থ হয়ে শাহিদাকে দিয়ে চীনের সাথে সম্পর্ক নষ্ট করে দিয়েছে।

পঠিত : ৭৬ বার

ads

মন্তব্য: ০