Alapon

"আমি নারী --এই সুযোগের সৎ -ব্যবহার করে বহু ডাইনী পিশাচিনীদের মুখোশ ঢাকা থেকে যায়"!



"আমি নারী --এই সুযোগের সৎ -ব্যবহার করে বহু ডাইনী পিশাচিনীদের মুখোশ ঢাকা থেকে যায়। এই সমাজে পুরুষের অপরাধের বিচার হয়। বা পুরুষ অপরাধ করলে সেটাকে বড়ো করে দেখা হয়। কিন্তু কেনো যেনো নারীদের অপরাধের বিচার হয় না। কিংবা সেগুলোকে হালকা করে দেখা হয়। একই অপরাধ বা ভুল যদি কোনো পুরুষ করে; তাহলে তা নিয়ে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। পুরুষের চৌদ্দপুরুষ উদ্ধার করা হয়। কিন্তু একই ধরনের অপরাধ তো নারীর মাধ্যমেই ঘটিত হয়। সেটা নিয়ে তো তোলপাড় হয় না। আলোচনা হয় না। সেটা থেকে যায় আড়ালে। পার্ভাট তৈরির পেছনে যেগুলো কাজ করে, সেগুলো আরো বড়ো পার্ভাট। এগুলো পরে গিয়ে সুশীল সাজে!

বড্ড বেশি ভয়ংকর এই সমাজ। বড্ড বেশিই ভয়ংকর! শুধু ভয়ংকর না; বে-ইনসাফেও পরিপূর্ণ এই সমাজ। এই রাষ্ট্র। এই বিশ্ব। যেমন পরকীয়া। আমি যদ্দুর জানি, পুরুষ করলে তার সাজা আছে। কিন্তু নারীর জন্য রাষ্ট্রের আইনে সম্ভবত সাজা নেই। পুরুষ কাউকে টিজ করলে সেটা নিয়ে ব্যাপকভাবে হুলস্থুল হয়। কিন্তু খোদার কসম ; নারীদের মধ্যেও পুরুষকে অনৈতিক কর্মকান্ডে বাধ্য করার নজির আছে। আল্লাহর কসম আছে। সেগুলো কখনো আলোচনায় উঠেছে?? এই সমাজে শুধু পুরুষ ধর্ষক নয়, নারী ধর্ষকও আছে। কয়জন মানুষ জানে এ খবর? শুধু নারী বলেই ভিক্টিমরা এসব নিয়ে সাহস করে মুখ খুলতে হয়তো পারেনা। কারণ মুখ খুললেই পুরুষকেই সমাজ-বাস্তবতা দোষী বানিয়ে ছেড়ে দিবে।

যেখানে আপনি পুরুষদের নিয়ে সমালোচনা করবেন, সেখানে নারী-পুরুষ উভয় লোককেই পাবেন। বাট যখনি নারীদের ভুলগুলো নিয়ে আলোচনা সামনে আনবেন, তখনই নারীরা এগুলোরে নারী বিদ্ধেষ হিসেবে ধইরা নিবে, এবং ইহুদীদের মত কইরা নিজের নারীত্বকে সামনে আইনা নিজেদের ভিক্টিম প্রমান করতে চাইবে। একই দোষ করেও তারা একই পরিমান শাস্তি নিতে চাইবে না, তারা নিজেদের নারী হিসেবে উপস্থাপন কইরা নিজেরে ভিক্টিম প্রমান করে বেনিফিট নিবে।

তাইতো আমি নারী --এই সুযোগের সৎ -ব্যবহার করে বহু ডাইনী পিশাচিনীদের মুখোশ ঢাকা থেকে যায় ! আমার অনুরোধ, কখনো কোনো পার্ভাটকে সামনে আনা হলে এসব পার্ভাটের সহযোগী আর মজা উপভোগ করা ডাইনী পাবলিকগুলোকেও সামনে আনা উচিত।

পঠিত : ১০৬৬ বার

মন্তব্য: ০