Alapon

সুইসাইড



মানুষের জীবনটা অনেক রোমাঞ্চকর। সুখের পাশাপাশি আমাদের জীবনে নেমে আসে চরম হতাশা। জীবিত মানুষ ভেতর থেকে মৃত করে ফেলে। চারদিকের মানুষের সাথে সুন্দরভাবে চলাফেরা করলে কেউ বুঝতে পারে না। আমাদের কার মনে কখন কি চলে সেটা কেউই বুঝতে পারে না। হতাশা এমন একটা জিনিস! যেটা সুন্দর জীবনকে নরক বানিয়ে দিতে দুই মিনিট সময় নিবে না। আমাদের ভেতরের সুন্দর অনুভূতিগুলোকে হত্যা করে ফেলে। সবকিছুতে শুধু বিরক্তি চলে আসে। আমাদেরকে খুবলে খুবলে খেয়ে ফেলে। একসময় কোনো উপায় না পেয়ে আমরা ধাবিত হই সুইসাইডের দিকে।

চারদিকে এখন আমাদের সুইসাইড জিনিসটা বেড়েই চলেছে। এখন প্রতিদিন খবরের পাতায় সুইসাইডের নিউজ থাকবেই। এটা যেন এখন অনেক সাধারণ একটা বিষয়। গতকিছুদিন থেকে নিউজফিডে বুয়েট এবং রুয়েটের স্টুডেন্টদের সুইসাইডের নিউজ ঘুরতেছে। আজকেও নাকি বুয়েটের স্টুডেন্ট সুইসাইড করছে। এসব নিউজ আমাদের সামনে আসে। এর বাহিরে হাজার হাজার সুইসাইডের ঘটনা আছে যেগুলো নিউজ কভার করে না।

মানুষ এখন অনেক হতাশাগ্রস্থ। একটুতেই হতাশ হয়। এর সবচেয়ে বড় কারণ আল্লাহর সাথে সম্পর্কহীনতা। পার্থিব জীবনকে আমরা অনেক গুরুত্ব দিতে শুরু করেছি। পরকালের ভাবনা আমাদের মাথা থেকে বেরিয়ে গেছে। দুনিয়াতে কোনো ঝামেলা বা বিপদে পড়লে আমরা এখান থেকে পরিত্রাণের চেষ্টা করি। যারা সুইসাইড করে এরা মূলত দুনিয়া অসহ্য যন্ত্রণা থেকে বের হওয়ার জন্যই সুইসাইড করে। কিন্তু পরকালের জীবনে যে তাদেরকে এরজন্য প্রশ্নবিদ্ধ হতে হবে সেটার কোনো খবর নেই। আল্লাহ তা'য়ালা হতাশ হতে নিষেধ করেছেন। কোরআনুল কারিমে তিনি বলেন,
‘তোমরা আল্লাহর রহমত থেকে নিরাশ হয়ো না। নিশ্চয় আল্লাহ তোমাদের সব গোনাহ মাফ করবেন। তিনি ক্ষমাশীল, পরম দয়ালু।' (সূরা যুমার : আয়াত ৫৩)

মানসিক প্রশান্তি থেকে পরিত্রাণের জন্য নবী করিম (সা.) আমাদেরকে কিছু আমল শিখিয়ে দিয়েছেন। আমাদের উচিৎ আল্লাহর সাথে সম্পর্ক বৃদ্ধির চেষ্টা করা। আল্লাহ আমাদেরকে সেই তৌফিক দান করুন।(আমিন)

|সুইসাইড|
~আব্দুল্লাহ আল কাফি জোহা
||২১.০৫.২০২৩||

পঠিত : ৬৭ বার

মন্তব্য: ০