Alapon

বিশ্ব কাপ


পৃথিবীতে বিভিন্ন ধরণের খেলার আয়োজন হয়ে থাকে বৈশ্বিকভাবে। যা বিভিন্ন সংস্থার আয়োজনে হয়। যেমনঃ আইসিসি,অলিম্পিক,ফিফা ইত্যাদি। তার মধ্যে হাতগোনা কয়েকটি খেলা বিশ্বের সকল প্রান্তের মানুষ একসাথে উপভোগ করে। ক্রিকেট এবং ফুটবল একেবারে তার শীর্ষে। খেলাগুলোর মধ্যে কিছু একেবারেই হারাম তো কিছু আবার বিভিন্ন বিষয়ের উপস্থিতিতে হারাম হয়। কিছু খেলা আবার হালাল তো কিছু সুন্নাত (শুধুমাত্র খেলাটি উদ্দেশ্য)।

হারাম খেলাগুলোর ক্ষেত্রে প্রায় সবাই হারাম জ্ঞান করলেও যেগুলো বিভিন্ন বিষয়ের উপস্থিতিতে হারাম হয় এমন খেলাগুলোর ক্ষেত্রে আমরা হারামে লিপ্ত হয় এবং নিজের কাজকে হালাল বানানোর জন্য এবার তালীল করা শুরু করি। অনেকেই আবার জানে না; আজকের লেখাটি মূলত বিশেষ করে তাঁদের জন্যই লেখা।
নিচে সম্ভাব্য কিছু হারাম হওয়ার কারণ উল্লেখ করা হলঃ

১) খেলাকে পেশা হিসেবে গ্রহণ করাঃ

এটাকে এই কারণে হারাম হিসেবে গন্য করা হয় যে এতে হারামের সাথে মিলিত হওয়া ছাড়া খেলা সম্ভব নয় খেলোয়াড়ের পক্ষে। এইক্ষেত্রে খেলোয়াড় হারাম কাজে লিপ্ত এবং আপনি হারাম কাজের মজা নিচ্ছেন। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুণ https://islamqa.info/en/75644

২) আওরাত উন্মোচিত হওয়াঃ


আইপিলের মত খেলাতে এর ছড়াছড়ি বেশি। তাছাড়া ক্যামেরাম্যানের বারবার মহিলাদের দিকে ক্যামেরা ঘুরানোর কারণে আপনি হারামে লিপ্ত হতে বাধ্য।
তাছাড়া ফুটবল খেলাগুলোতে ছেলেদের সতর ঢেকে রাখা হয় না। অথচ ছেলেদের সতর দেখাও হারাম। বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুণhttps://islamqa.info/en/146844

৩) কাফের খেলোয়াড়দের প্রতি ভালোবাসাঃ



কোনো অমুসলিমের প্রতি শরীয়ত অনুযায়ী কুফুরী। কিন্তু আমরা দেখি খেলার ক্ষেত্রে এর সমর্থকরা কাফেরদের প্রতি ভালোবাসায় মত্ত হয়ে যান।
শায়খ সালেহ আল উছাইমিন রহিমাহুল্লাহ বলেনঃ
“এটি জায়েজ হবে যদি সকলপ্রকার হারাম থেকে মুক্ত থাকে; কিন্তু যদি এর সাথে অন্যান্য গুনাহও মিশ্রিত থাকে, যেমন দর্শক যদি একজন কাফির খেলোয়াড়কে সম্মান করতে শুরু করে, তাহলে তা নিঃসন্দেহে হারাম, কারণ আমাদের জন্য কাফেরদের সম্মান করা মোটেই জায়েজ নয়, তারা যতই এগিয়ে যাক না কেন।”
বিস্তারিত জানতে এখানে ক্লিক করুণhttps://islamqa.info/en/146844

৬) জুয়ার সাথে জড়িত হওয়াঃ



খেলার মধ্যে জুয়া প্রবেশ করালেও সেই খেলা হারাম হয়ে যায়। কেননা জুয়া নিজ গুণেই হারাম।

৫) দর্শকদের সময়ের অপচয়ঃ


সাধারণত খেলাগুলো এক লম্বা সময় ধরে চলে। যার ধরুন মুসলিমরা তাঁদের মূল কাজ- আল্লাহর ইবাদত থেকে দূরে থাকে। অথচ মুমিনদের উচিত আল্লাহর জন্য ইবাদত করা এবং নিজেদের মূল্যাবান সময়গুলো বিনা প্রয়োজনের কাজে অপচয় একেবারে উচিত নয়। অথচ আমাদের সামনে দাওয়াত,ইলম ইত্যাদির মত গুরুত্বপূর্ণ কাজ পরে আছে। এদিকের প্রতি লক্ষ্য রেখেই উম্মাহর আলেমগন এসব খেলা থেকে দূরে থাকতে উপদেশ দিয়েছেন।

৭) অশ্লীল বিজ্ঞাপনঃ


আমরা যারা খেলা দেখি তাদের চোখ অশ্লীল বিজ্ঞাপন গুলোকে ফাঁকি দিতে পারে না। ফলে একটি বিনোদনমূলক কাজ করতে গিয়ে পর্দার বিধান লঙ্ঘন হচ্ছে। যা হারাম। আর এমন কাজের জন্য হারাম করা মোটেই জায়েজ নেই।

৮) হারাম কাজে উৎসাহ প্রদানঃ


হামেশায় এমন খবর আমাদের কানে আসে যে অমুক খেলোয়াড় অমুক মদ বা জুয়ার সাইটের লোগোসহ খেলায় নামেননি। আমরা তাকে বাহবা দেয়। অবশ্যই তার এই কাজটি প্রশংসনীয়। কিন্তু খেয়াল করেছেন বাকি খেলোয়াড়দের স্পনসর করা টাকাগুলো কাদের মাধ্যমে আদায় করা হচ্ছে? আমাদের এড দেখিয়েই তারা টাকা উশুল করছে। তাছাড়া স্ক্রিনে দেখানো বিজ্ঞাপনগুলোও অশ্লীল।
গাযার জন্য কান্না করি আমরা এবং বিভিন্ন পণ্যের বয়কট করি কিন্তু ঠিকই যারা তাদের প্রচার করে তাদের প্রচারকারী হয় আমরা। সুতরাং হারাম কাজে উৎসাহিত করা থেকেও বিরত থাকা উচিত।


এই লেখাটি তাদের জন্য যারা আল্লাহর কাছে নিজের ইচ্ছাকে সমর্পণ করেছেন। আপনাদের কাছে অনুরোধ যারা ভুলের মধ্যে আছে তাদের জানিয়ে দিন এবং রেফারন্সসহ তাদের কাছে পৌঁছে দিন। তারপরও না মানলে আপনি তাদের থেকে বিরত থাকুন।


বাংলা ভাষী আলেমদের ফতোয়াঃ

শায়খ আহমাদ উল্লাহhttps://youtu.be/9zypFCQQKCM?si=iV8c5BPUML2IUEJb

শায়খ আহমাদ উল্লাহhttps://youtu.be/VHFjdGZ3ea4?si=VEzRQ6pOZz2ftdHd


শায়খ মনজুর ইলাহীhttps://youtu.be/S22gMR9EUEo?si=HC51-RaUscGyP_yX

শায়খ আবু বকর যাকারিয়াhttps://youtu.be/AOHBBrzgPn4?si=RPkmOmGf9q1BoWDU

মাওলানা লুৎ্ফুর রহমান রহিমাহুল্লাহhttps://youtu.be/b2RaGacft64?si=inevajILsAXBwp2u


শায়খ আব্দুর রাজ্জাক বিন ইউসূফhttps://youtu.be/cbMLBQr5snM?si=l_pmX4CIPojq_eIT


শায়খ নুরুল ইসলাম ওলীপুরীhttps://youtu.be/5nEklZ9IofA?si=vRm83wPCIukibNSD

মাওলানা আরিফ বিন হাবিবhttps://youtu.be/GOwflW6cIO0?si=bmMwqYQ4AZa-Ezs2

শায়খ আবুল কালাম আযাদ বাশার এবং আরো কিছু আলেমদের মতামতhttps://youtu.be/HrfuIrcy0nY?si=c4ZBEaj3GN7aK3ye

মাওলানা মুহাম্মাদ আব্দুল মালেকhttps://www.alkawsar.com/bn/article/379/

মাসিক আত-তাহরীকhttps://at-tahreek.com/article_details/5636

মুসলিম বাংলাhttps://muslimbangla.com/masail/10874

আস-সুন্নাহ ট্রাস্টঃhttps://assunnahtrust.org/bn/qa/4270/

পঠিত : ৪৪৭ বার

মন্তব্য: ০