Alapon

গান বাজনা



গান-বাজনা
আস সালামু আলাইকুম ওয়া রহমাতুল্লাহ,
আমাদের মাঝে যে কবিরা গুনাহগুলো সুস্পষ্ট হওয়ার পরও আমরা সেগুলোতে লিপ্ত হচ্ছি এবং হালাল মনে করছি তার মধ্যে অন্যতম গান-বাজনা। আমাদের কাছে স্পষ্ট হওয়ার পরও বিচ্ছিন্ন কিছু মতামতকে আমরা কাজে লাগিয়ে নিজেদের হারামগুলোকে হালাল বানায়। কিন্তু দেখা যায় অবস্থা এমন দাঁড়ায় যেসকল বিচ্ছিন্ন মত আছে তার সীমাও আমরা অতিক্রম করি। জাহেলী যুগে আল্লাহর রাসূলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামকে আল্লাহ্ তায়ালা যে একটি খারাপ কাজ থেকে উদ্ধার করেছিলেন তাহল এই বাদ্যযন্ত্র। (ইজ মিউজিক হালাল,৩৭/ সহীহ ইবনু হিব্বান,৬২৭২)
তিনি আরো বলেছেনঃ
'আবদুর রহমান ইবনু গানাম আশ'আরী (রহঃ) থেকে বর্ণিতঃ
তিনি বলেন, আমার নিকট আবূ আমির কিংবা আবূ মালিক আশ'আরী বর্ণনা করেছেন। আল্লাহ্‌র কসম! তিনি আমার কাছে মিথ্যে কথা বলেননি। তিনি নবী (সাল্লাল্লাহু ‘আলাইহি ওয়া সাল্লাম)-কে বলতে শুনেছেনঃ আমার উম্মাতের মধ্যে অবশ্যই এমন কতগুলো দলের সৃষ্টি হবে, যারা ব্যভিচার, রেশমী কাপড়, মদ ও বাদ্যযন্ত্রকে হালাল জ্ঞান
(সহীহ আল-বুখারীঃ ৫৫৯০)

রাসূল সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লামের এই কথার প্রমাণ আমরা আজ পাচ্ছি। এমন গোষ্ঠী এসেছে আমাদের মাঝে যারা মিউজিককে হালাল বানানোর জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে বা ইসলামিক মিউজিকের নামে আমাদের ধোঁকা দিচ্ছে আর আমরা এসব ব্যক্তিদের বক্তব্য প্রভাবিত হয়ে বা নফসের ধোঁকায় পরে এসব গান শুনছি। সবচেয়ে জঘন্য বিষয় আমরা হারামকে হালাল বানিয়ে নিয়েছি। আমরা সকলেই জানি কবিরা গুনাহ থেকে তওবা না করার আগ পর্যন্ত গুনাহ মাফ হয় না। যেহেতু আমরা এসবকে হালাল মনে করছি তাই আর তাওবা করছি না।
আমাদের দেশের অধিকাংশ মুসলিম হানাফী মাযহাবের অনুসারী। ইবনুল কায়্যিম রহিমাহুল্লাহ বলেনঃ

আবু হানিফার মাযহাব এ ব্যাপারে সবচেয়ে কঠোর এবং তার মন্তব্য সবচেয়ে কঠোর।


আল-আলবানী রহিমাহুল্লাহ বলেনঃ
চার মাযহাব একমত যে সকল বাদ্যযন্ত্র হারাম।
(আল-সহীহাহ, ১/১৪৫)

কিন্তু অনেকে নিজেদের হানাফী দাবি করেলেও এই ক্ষেত্রে বিচ্ছিন্ন মত তুলে আনেন।
অনেকেই আবার শুধুমাত্র কিছু সময়ের জন্য অন্যকে আনন্দ দিতে মজাচ্ছলে সামাজিক মাধ্যমগুলোতে এমন সব ক্লিপ দেন যাতে গান-বাজনা বিদ্যমান। এটি মারাত্মক এক বোকামি কেননা কেউ কি অন্যকে আনন্দ দিতে নিজের জন্য জাহান্নাম খরিদ করতে চায়? – না।
এ ধরণের বিভিন্ন ক্লিপ যাতে গান-বাজনা থাকে তা শুধুমাত্র গান-বাজনার জন্য হারাম হওয়া যথেষ্ট।
এখানে এমন কিছু চ্যানেল ও ব্যক্তির সাথে পরিচিত করিয়ে দেওয়া হল যাতে করে আমরা সংশোধন হতে পারি। আরো অনেকেই আছেন যাদের সাথে হয়ত আমি পরিচিত নয়। সুতরাং নিজের জায়গা থেকে সতর্ক হব আমরা ইনশা আল্লাহ্!

বিস্তারিত জানতে ক্লিক করুন

পঠিত : ৩৩৩ বার

মন্তব্য: ০